মহম্মদপুরে আ,লীগের সাধারণ সম্পাদকের উপর হামলা প্রতিবাদে

আপডেট : June, 30, 2017, 6:01 pm

সড়ক অবরোধ,হামলা, ভাংচুর,লুটপাট,অগ্নিসংযোগ ,পুলিশের গুলি,আহত-১০,আটক-১

মহম্মদপুর (মাগুরা)প্রতিনিধি: মাগুরা মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড় আব্দুল মান্নান উপর হামলা চালিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন তাকে মাগুরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ, হামলা ,বাড়ি ভাংচুর ,লুটপাট,ও অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে ১০জন ,পুলিশ আটক করেছে ১জন আ,লীগ কর্মীকে। হামলাকারীরা মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় চেয়ারম্যান শিকদার মিজানুর রহমানের স্বজন ও সমর্থক বলে দাবি করেছেন আব্দুল মান্নান।
প্রতাক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে আব্দুল মান্নান মটর সাইকেল যোগে তার কর্মস্থল মাগুরা কোর্টে যাওয়ার পথে তল্লাবাড়ীয়ায় পেীঁছালে মিজানুর রহমানের সমর্থক মনিরুল,কুমুদ,ও গেীরাঙ্গসহ আরো কয়েকজন বাঁশ দিয়ে প্রতিরোধ করে তার উপর হামলা চালায়। হাতুড়ী , বাটাম ও চেয়ার দিয়ে তার শরীরে বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করে গুরুতর আহত করে তাকে রাস্তায় ফেলে রেখে হামলাকারীরা চলে যায়। তার চিৎকার শুনে এলাকাবাসি উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে পেীঁছে দেয়।
এ ঘটানার পরে আব্দুল মান্নানের সমর্থক, আ,লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা জড়ো থাকে । পরে বিক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা রাস্তার গাছ কেটে মহম্মদপুর –- মাগুরা সড়ক অবরোধ করে। আউনাড়া বাজার থেকে বিনোদপুর বাজার পর্যন্ত প্রায় ৩০টি তাজাগাছ , গাছের লগ , বিভিন্ন জড়ো বস্তু দিয়ে ১১টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত এ অবরোধ চালিয়ে জনগনকে চরম ভোগান্তিতে ফেলে , দেয় গাড়ি চলাছল বন্ধ হয়ে যায় এবং হাজার হাজার নেতা কর্মী সংগঠিত হয়ে দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মিজানুর রহমানের ইটভাটা , বিনোদপুরের বাড়ি,মিজানের ঘর ভাড়া নেওয়া সালেক মোল্লার পাটের গুদাম ,গোরাঙ্গদের বাড়িতে ভাংচুর চালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেন বিক্ষুদ্ধ জনতা। পরে হামলাকারীরা ঘুল্লিয়া মিজানের গ্রামের বাড়ি , তার বড় ভাই ফিরোজ শিকদারের বাড়ি , নইম শিকদারের বাড়ি , শুকুর শিকদারের বাড়িসহ আরও ৪০টি বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাট করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন আনতে পুলিশ ৬৬টি রাউন্ড রাবার বুলেট ও ২ রাউন্ড টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে।
স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী প্রতিদিনের সংবাদকে জানান, উপজেলার আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আব্দুল মান্নান প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সহকারী সাইফুজ্জামান শিখরের অনুসারী ও চেয়ারম্যান শিকদার মিজানুর রহমান যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদারের অনুশারী। এ দুই নেতার বাড়ি একই ইউনিয়নে অবস্থিত হওয়ায় দীর্ঘ দিন ধরে স্থানীয় ও আওয়ামী লীগের রাজনীতি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল এটি তার অংশ হতে পারে অথবা দু-তিন দিন আগে বিনোদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের মিটিং ছিল , মিটিং চলাকালিন সময়ে মিজানুর রহমারের সমর্থককে মারধোর করে মান্নানের সমর্থকেরা তার জের ধরে এ হামলা হতে পারে সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানের উপর।
মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম বলেন, এলাকা এখন শান্ত রয়েছে ,যে কোন পরিস্থিতি মোকাবেলায় অরিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।
মহম্মদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তরীকুল ইসলাম বলেন, পুলিশের তিনটা টিম এখনও মোতায়েন রয়েছে,তবে মামলা করতে কোন পক্ষের লোকজন থানায় আসেনি।

Facebook Comments

103331
Total Users : 3331